৩ টি উপায়ে ঘরোয়া পদ্ধতিতে ব্রণ থেকে মুক্তি

|| আয়ুর্বেদিক উপায়ে ঘরোয়া পদ্ধতিতে ব্রণ থেকে মুক্তি ||

Ayurvedic way to get rid of acne at home

          এখনকার দিনে নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হল ব্রণ। যাকেই দেখা যায় সেই ব্রণ-এর সমস্যা নিয়ে চিন্তিত থাকে। ব্রণ কমানোর জন্য দোকানে অনেক জিনিস পাওয়া যায়। কিন্তু তার মধ্যে দেখা যাই অর্ধেকের বেশি কোন কাজ হয় না কিংবা অনেক দামীহয়। যদিও দামটা মূল কারণ না, কারণটা হলো আজকের দিনে বিভিন্ন রকমের বিজ্ঞাপন বানিয়ে তাতে লোককে ব্রণ কমানোর প্রতিশ্রুতি তো দেয়, কিন্তু সেটা শুধু বিজ্ঞাপনেই। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বাস্তবে সেটা হয় না।
       যদি আপনি অনেক কিছু মাখার পরেও না কমে, তাহলে কিছু পরামর্শ দেব যেটা প্রয়োগ করলে সম্পূর্ণ ব্রণ থেকে মুক্তি পাবেন। আর যে পরামর্শগুলো দেব সেগুলো সম্পূর্ণ আয়ুর্বেদিক উপায়ে এবং আপনি সহজেই ঘরে বসে ব্যবহার করতে পারবেন।

  1. মুসুর ডাল কে দুধের সাথে মিশিয়ে ভালোভাবে বেটে নিতে হবে। এবার এটাকে মুখে লাগাতে হবে। প্রায় পাঁচ মিনিট এভাবে রাখতে হবে অথবা কোন কাজও করতে পারেন। তারপর পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন, জল যেন অবশ্যই গরম না হয়। আপনি যদি নিয়মিত এটা সকাল এবং সন্ধ্যেবেলা করতে থাকেন তাহলে মুখ পুরো পরিষ্কার হয়ে যাবে। মুখে কোন দানা বা ব্রণ থাকবে না।
  2. আরেকটা উপায় যেটা আপনার মুখের ব্রণ তো কমবেই, এর সাথে মুখের উজ্জলতা ফিরিয়ে আনবে। যদি বিয়েতে নিজেকে সবচেয়ে বেশি সুন্দর দেখতে চান তাহলে অবশ্যই এই উপায়টি ব্যবহার করুন। লেবুর রস, বাদাম রোগান আর গ্লিসারিন এই তিনটি জিনিসকে সমান মাত্রায় নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে একটা শিশিতে ঢেলে রাখুন। এই মিশ্রনটিকে প্রতিদিন সকালে নিয়ম করে মাখা শুরু করে দিন, এতে আপনার মুখের ব্রণ উধাও হয়ে যাবে। এর সাথে ত্বক কোমল এবং উজ্জ্বল হবে।
  3. প্রায় ৩০ গ্রাম জোয়ান নিয়ে সেটাকে ভালোভাবে গুঁড়ো করে নিন। আর এটা কে প্রায় ২৫ গ্রাম দই-এ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর রাতে শোয়ার সময় মুখে লাগিয়ে দিন, সকালে উঠে উষ্ণ গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটা করলে আপনার মুখে শুধু ব্রন দূর হয়ে যাবে তা নয়, বরঞ্চ মুখে অন্য কোন সমস্যা দেখা দেবে না।

        তাহলে এই ছিল কিছু আয়ুর্বেদিক পরামর্শ যেগুলো আপনার মুখ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখবে। আর একটা কথা মনে রাখবেন এর কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।