গিলোই বা গুলঞ্চ এর উপকার ও ব্যবহার | Benefits and uses of Giloi or Gulach

Benefits and uses of Giloi or Gulach

     আয়ুর্বেদের এক মহৌষধের নাম হলো গিলোই বা গুলঞ্চ। বহু প্রাচীনকাল থেকেই এর ব্যবহার হয়ে আসছে।  মুনি-ঋষিরা সাধারণত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবেই ব্যবহার করেছেন। কারণ এর থেকে বড় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আর কোন কিছুতেই দেখা যায় না। চলুন আজ দেখা যাক গিলোই বা গুলঞ্চের কি কি উপকার ও কিভাবে ব্যবহার করতে হয়। 


  • উপকারিতা 

১. রক্তস্বল্পতা দূর করে। 

২. প্লীহা রোগের মহৌষধ। 

৩. পেটের রোগে ব্যবহার করা হয়। 

৪. চোখের রোগের জন্য উপকারী। 

৫. জ্বর হলে গিলোই রাম বানের মত কাজ করে। 

৬. লিভার ও সুগারের রোগে উপকার করে। 

  • কিভাবে ব্যবহার করতে হয়? 

          রক্তাল্পতার জন্য ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য গুলঞ্চের রস প্রতিদিন সকালে বিকালে ঘি অথবা মধু মিশিয়ে ১কাপ করে খেতে হবে। আর এই অভ্যাস আপনাকে একমাস চালিয়ে যেতে হবে।  এটি করলে আপনার শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলবে এবং এর সাথে সাথে রক্তস্বল্পতা দূর হবে। একটু কাজ করেই কষ্ট হয়ে যায়,  সামান্য একটুতেই শরীর দুর্বল লাগে বা ঠান্ডা  লেগে যায়। এর ব্যবহারে এই সব কষ্ট দূর হবে।

         প্লীহা রোগের দারুন কাজ করে গুলঞ্চ। আসলে একটু বিচার করলে দেখা যায় যে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নির্ভর করে সঠিকভাবে রক্ত চলাচল ও যথেষ্ট পরিমান রক্ত উৎপাদনের উপর। আর আমাদের রক্ত উৎপাদন তখনই ভালো হবে যখন আমাদের প্লীহা ঠিক থাকবে। আমাদের প্লীহা সুস্থ আছে কি নেই সেটা বোঝার কোন উপায় নেই। একমাত্র  নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার মাধ্যমেই এটা বোঝা যায়। প্লীহা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও  রক্ত উৎপাদনের সঙ্গে সরাসরি জড়িত। প্লীহা আমাদের পাকস্থলীকে খাদ্য হজমে সহায়তা করে, তারপর লাল রক্ত তৈরির জন্য যকৃৎ থেকে একটি উপাদান গ্রহণ করে। তাই আমাদের প্লীহাকে সুস্থ রাখা দরকার।  প্লীহাকে সুস্থ রাখার জন্য গুলঞ্চের এক চামচ গুঁড়ো সাথে কালো মরিচ ও এক চামচ ত্রিফলা নিয়ে সমস্ত গুড়োর সাথে খাঁটি মধু মিশিয়ে  চেটে চেটে খেতে হবে। অথবা যদি গিলোই এর পাতা পাওয়া যায় তবে সেটাকে থেঁতো করে এক চামচ রস নিয়ে এক গ্লাস মাঠা অর্থাৎ ঘোলের সাথে মিশিয়ে সকালে খেয়ে নিতে হবে। 

গিলোই বা গুলঞ্চ এর উপকার ও ব্যবহার

আরো পড়ুন 

কালোজিরার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা | Some important benefits of black cumin


         পেটের রোগের জন্য উপকারী গিলোই। যেকোনো রকম পেটের সমস্যায় গিলই এর রস এর সাথে মধু মিশিয়ে খেতে হয়। এছাড়াও গিলই এর সাথে শতাভারি একসাথে থেঁতো কোরে এক গ্লাস  জলের সাথে ভালো করে ফোটাতে হবে এবং সেই ফোটানোর ক্বাথ সকালে ও বিকালে এক কাপ করে খেতে হবে। এভাবে খেলে পেটের কোন সমস্যায় পড়তে হবে না।

আরো পড়ুন 

মধু খাওয়ার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা


       চোখের রোগের জন্য উপকারী গিলই।  গিলই এর রস এবং আমলকির রস একসাথে মিশিয়ে খেলে চোখের সমস্যা দূর হয়, চোখের দৃষ্টি ফিরে আসে স্বচ্ছতা বৃদ্ধি পায়। চোখের সমস্যার জন্য আরো বেশি উপকার পেতে গেলে গিলয় রসের সাথে ত্রিফলা মিশিয়ে ক্বাথ বানিয়ে নিতে হবে। এবং এই ক্বাথ  এর সাথে পিপল এর গুড়ো এবং মধু মিশিয়ে সকালে বিকালে খেতে হবে।


       যেকোনো রকম জ্বরে গিলোই হলো অদ্বিতীয়। গিলোই এমন এক রসায়ন যা রক্তশোধক, ওজ বর্ধক, হৃদয় রোগ নাশক, শোধ নাশক এবং লিভার টনিকও। গিলোই এর রসের সাথে মধু মিশিয়ে খেলে বার বার হওয়া জ্বর ঠিক হয়ে যায়।  অথবা গিলোই এর রসের সাথে পেপুল এর গুঁড়ো মিশিয়ে খেলে প্রচন্ড জ্বর ও কাশি ঠিক হয়ে যায়।

আরো পড়ুন 

ত্রিফলা খাওয়ার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা | There are some important benefits of eating triphala

 

        তো বন্ধুরা আমরা আজ গিলোই এর অনেক উপকার ও প্রয়োগ জানলাম।  আগামী দিনে আমরা এই বিষয়ে আরো জানবো। এই রকম আরো পরামর্শ  বা তথ্য পেতে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইট কে bookmark করে রাখুন। এবং এই পোস্ট টি পড়ে আপনার ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জনের সাথে শেয়ার করুন।  যদি আমাদের এই প্রচেষ্টায় আপনার কোনো উপকার হয় তবে comment option এ আপনার মতামত লিখুন। 

এতক্ষন আমাদের এই পোস্ট টি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ ধন্যবাদ।  আনন্দে থাকুন ভালো থাকুন।